ঢাকা 12:19 pm, Saturday, 4 February 2023

কিভাবে আপনার ইউটিউব চ্যানেল নগদীকরণ করবেন ?

  • আপডেট সময় : 04:30:44 am, Sunday, 10 April 2022 174 বার পড়া হয়েছে

আসসালামু আলাইকুম!

কেমন আছেন সবাই? আশা করি সবাই ভালো আছেন। আমিও আল্লাহর রহমতে ভালই আছি। আজকে আমি আলোচনা করব কিভাবে আপনার ইউটিউব চ্যানেল নগদীকরণ করবেন?

তো বন্ধুরা চলুন শুরু করা যাক :

কিভাবে আপনার ইউটিউব চ্যানেল নগদীকরণ করবেন

কিভাবে আপনার ইউটিউব চ্যানেল নগদীকরণ করবেন

ইয়েস ফাইনালে আমি সাইট সজীব আপনাদের সামনে হাজির হয়েছি ইউটিউবের মনিটাইজেশন এবং ইউটিউব এর খুঁটিনাটি বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা করার জন্য এবং কিভাবে আপনার ইউটিউব চ্যানেল নগদীকরণ করবেন
বেশ কিছুদিন ধরে আমি খেয়াল করেছি এস্টিমেটিং এর ফেসবুক পেজে এবং গুরুপে বেশি অংশ মেসেজ আসছে ইউটিউবের মনিটাইজেশন বিষয়টি নিয়ে অনেকেই জানতে চাচ্ছেন ভাই আমার 4000 ঘন্টা ওয়াচ টাইম এবং 1000 সাবস্ক্রাইবার কমপ্লিট হয়ে গেছে তারপরও কেন আমি মনিটাইজেশন পারছিনা এই পোস্ট টি থেকে আপনারা জানতে পারবেন যে কেন আপনি মনিটাইজেশন পাচ্ছেন না এবং ঠিক এই মুহূর্তে আপনাকে কী কী করা প্রয়োজন তো চলুন শুরু করা যাক আমার মত যারা ইউটিউবে নতুন কাজ করতে আসেন তারা প্রথমে যে সমস্যাটি পেশ করেন সেটা হলো চ্যানেলের ভিডিও এবং সাবস্ক্রাইব সেকেন্ডের তারা যে বড় ধরনের সমস্যা ফেইস করেন তার চ্যানেলের মনিটাইজেশন নিয়ে অনেকে প্রশ্ন করে থাকেন ভাই কিভাবে আমার ভিডিও সাবস্ক্রাইবার বাড়াবো তোমাকে প্রশ্ন করে থাকেন ভাই কিভাবে আমি মনিটাইজেশন পাবো।

কিভাবে আপনার ইউটিউব চ্যানেল নগদীকরণ করবেন

আমি তো সব নিয়ম ফলো করেছি আমি 4000 ঘন্টা ওয়াচ টাইম 1000 সাবস্ক্রাইব করুন করে ফেলেছি কেন আমি ইউটিউব থেকে মনিটাইজেশন পাচ্ছিনা বর্তমান সময়ে এতটাই স্ট্রীট হয়ে গেছে যে তার হাতে গোনা কয়েকটি চ্যানেলকে মনিটাইজেশন দিচ্ছে এর পেছনে কিন্তু মূল কারণ আমরা নিজেরাই আমরা ছোটখাটো কিছু ভুল করার কারণে আজকে ইউটিউব আমাদের সামনে এতগুলা নিয়ম ছুঁড়ে দিচ্ছে এবং সেগুলো একজন নতুন কন্টিনারের পূরণ করা অনেকটাই কষ্টসাধ্য হয়ে যাইতো এখন আমি আপনাদেরকে শুরু থেকে সবকিছু জানিয়ে দেবো ঠিক আপনাকে কি করা প্রয়োজন এবং কোন নিয়ম গুলো ফলো করতে হবে ঠিক নির্দিষ্ট কি কি কাজ করা প্রয়োজন যার জন্য আপনার সাবস্ক্রাইবার বাড়বে আপনার বয়স বাড়বে এবং আপনি খুব সহজে ক্ষুদ্রতম রিলেশন পেয়ে যাবেন তো অনেকেই জানেন তারপরও আমি বলছি প্রথমে আপনাকে সিলেকশন করতে হবে কন্টেন কন্টেন সিলেকশন আপনার ইউটিউবে আসার পথে একটি ধাঁধা এমন একটা কন্টেন সিলেকসন কোনটা মানুষের কাছে গ্রহণযোগ্য এবং মানুষ যে এটা দেখতে চাই তারপরে যে কথাটি বলবো সেটা হল রেগুলারিটি নিয়মিত ভিডিও আপলোড করতে থাকুন এক সপ্তা একটা আপলোড করলেন পরে দুই সপ্তাহ বাদ দেন আর একটা ভিডিও আপলোড করলেন এরকম কখনো করবেন না আপনি।

কিভাবে আপনার ইউটিউব চ্যানেল নগদীকরণ করবেন

চেষ্টা করবেন রেগুলার ভিডিও আপলোড করার একটা নির্দিষ্ট টাইম সিলেক্ট করে নিন এবং সেই টাইমটা ভিডিও আপলোড করুন এক্ষেত্রে কিভাবে আপনার আপনার সেই টাইমটা বসে থাকবে আপনার একটা ভিডিও আপলোড এর অপেক্ষায় তো আপনি এজন্য ট্রান্সলেশন করে নিবেন সেকেন্ড যে কথাটি আমি বলব আপনাদের কে সেটা হল চ্যানেল কাস্টমাইজেশন এটা অনেকেই গুরুত্ব দেন না কিন্তু এটা কিন্তু খুব ইম্পর্টেন্ট একটা বিষয় জায়গায় আপনাকে প্রথমে আপনার চ্যানেলটা সুন্দরভাবে গড়ে তুলতে হবে এমন ভাবে আপনার চ্যানেলটা সাজিয়ে গুছিয়ে রাখুন যেন একটা নতুন বিবার আপনার চ্যানেলের ঢুকলে সে যেন সাবস্ক্রাইব না করে বের না হয় এটা নতুন বিভাজন আপনার চ্যানেলের ঢুকবে সে যখন আপনার একটা ভিডিও দেখবে তার ভালো লাগবে সেকেন্ড শেয়ার একটা ভিডিও দেখবে তার ভালো লাগবে এমন করতে করতে সে একসময় আপনার চ্যানেলটা সাবস্ক্রাইব করতে বাধ্য হবে তারপরে আপনার চ্যানেলটা থেকে বের হবে ঠিক এমন ভাবে আপনি কোন ট্রেন গুলো সাজানো এমনভাবে আপনার চ্যানেলটা কাস্টমাইজেশন করুন আর আপনার যদি কাস্টমাইজেশন নিয়ে কোন প্রবলেম থাকে তাহলে এই বাটনে ক্লিক করলে একটা ভিডিও দেখতে পারবেন চ্যানেল কাস্টমাইজেশন নিয়ে সেটা পরবর্তীতে দেখে আসতে পারেন আপনি আপনার চ্যানেলের জন্য একটা নির্দিষ্ট লোগো তৈরি করুন একটা সুন্দর লোগো তৈরি করুন একটা নির্দিষ্ট কভার ফটো তৈরি করুন।

এবং সেটা আপনার চ্যানেলের সাথে এড করে দিন আপলোড করে দিন তাহলে দেখবেন আপনার চ্যানেল টা দেখতে আগের তুলনায় অনেক বেশি সুন্দর হবে ভিডিওগুলো একটা নির্দিষ্ট ধাপে ধাপে তৈরি করুন এবং সুন্দরভাবে প্লেলিস্ট তৈরি করুন এবং সুন্দরভাবে চ্যানেলটির কাস্টমাইজেশন করুন চ্যানেলটি সাজিয়ে তুলুন তারপর একটা জিনিস আপনাদের যেটা বলবো সেটা হলো আপনাকে প্রমাণ করতে হবে আপনি একজন রিয়েল কন্টেন ক্রিয়ার কথা কিন্তু তিনি বলেন রিয়েল কন্টেন ক্রিয়ার এটা প্রমাণ করা কিন্তু খুবই গুরুত্বপূর্ণ আপনার মনিটাইজেশনের ক্ষেত্রে এখন আপনি বলবেন ভাই আমি ইউটিউব কে কিভাবে বুঝাবো আমি একজন রিয়েল কন্টেন কিউরেটর ইউটিউব এ জন্য আপনাকে অনেক পথ খুলে রেখেছে কিন্তু অনেকে এই জিনিসটা জানেন না আপনি যে মেইল টা দিয়ে ইউটিউব অ্যাকাউন্ট ক্রিয়েট করেছেন সেই ইমেইলের পার্সোনাল ইনফরমেশন এ চলে যান এবং সেই জায়গায় আপনার পার্সোনাল ইনফরমেশন গুলো এড করে নিন যেমন ধরুন আপনি কোথায় থাকেন আপনার এডুকেশনাল ব্যাকগ্রাউন্ড আপনার জন্ম তারিখ আপনার কান্ট্রি নেম আপনি বর্তমানে কোথায় থাকেন কোথায় আপনার জন্ম হয়েছে এসব কোনো পার্সোনাল ইনফরমেশন আপনি আপনার চ্যানেলের মেইলে অ্যাড করে দিন সেকেন্ডে আপনি আপনার ইউটিউব চ্যানেলের একটা ফেসবুকের গ্রুপ একটা ফেসবুকের পেজ এবং ইনস্টাগ্রামের একটা অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন।

টুইটারের একটা একাউন্ট খুলতে পারেন গুগল প্লাসের অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন এরকম বিভিন্ন ধরনের সোশ্যাল মিডিয়ার অ্যাকাউন্টগুলো ক্রিকেট করুন এবং সেগুলো আপনার ইউটিউব চ্যানেলের অ্যাড করে দিন এ ক্ষেত্রে কিভাবে ইউটিউবের বুঝতে সুবিধা হবে যে আপনি একজন ক্যারিয়ের মানুষ রিয়েল কন্টাক্ট নেটওয়ার্ক আপনি ইউটিউবে এখানে কাজ করতে এসেছেন আপনি রেগুলার এখানে কাজ করতে চান এবং এখান থেকে আপনি আসলে মানুষকে কিছু শেখাতে চান শুধুমাত্র এই ছোটখাটো কাজগুলো করলে কিন্তু ইউটিউব আপনাকে মনিটাইজেশন দিবে এমন কোন কথা নাই এখন অনেক বিষয় বাকি আছে সবগুলো বিষয়ই আমি আপনাদের সামনে তুলে ধরবো তারপরে যে জিনিসটা বলতেই হয় ফেস ক্রিম ভিডিও আমরা যে কনটেন্ট এর উপর ভিডিও বের করে থাকি সেটা হয়তো গুরুত্বপূর্ণ আসেনা ফেইসক্যাম জিনিসটা তারপর বেস ক্যাম্পে করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ আপনার নতুন মনিটাইজেশন পাওয়ার জন্য আপনি যদি আমার চ্যানেলে দেখতে পারবেন আমার চ্যানেলে কিন্তু নাইন্টি পার্সেন্ট ভিডিও আছে ফেসবুক টা তো আমি নিজে প্রেজেন্ট করে আমার ভিডিওতে আপনি চেষ্টা করবেন আপনি যে ভিডিও তৈরি করবেন সেই ভিডিও আপনার সামনে এসে কিছু কথা বলবেন আপনি শুরুতে কিছু কথা বললেন এবং ভিডিও লাস্টে কিছু কথা বলেন আপনি সেটা ফেইসক্যাম করে আপনার ভিডিওর সাথে এড করে দিলেন।

তারপর আমি যে জিনিস গুলো নিয়ে কথা বলব সেগুলো খুবই ইমপরটেন্ট বিষয়গুলোর ভেতরে দুইটা জিনিস আমি রেখেছি সেটা হল ইউটিউব কমিউনিটি গাইডলাইন এবং কপিরাইট পলিসি এই দুইটা বিষয় যায় তাহলে কিন্তু অনেক বিষয় চলে আসে তো আমি এখান থেকে কিছু কিছু বিষয় আপনাদের সামনে তুলে ধরার চেষ্টা করব যে বিষয়গুলো যদি আপনারা একটু মানতে পারেন তাহলে আপনি খুব সহজেই আপনার চ্যানেল থেকে মনিটাইজেশন পেতে পারেন কমিউনিটি গাইডলাইন এর ভিতরে আমি দুইটা জিনিস নিয়ে কথা বলবো এখন আর একটুও মিস লিডিং মেটাডাটা আমরা প্রথমে করে থাকি এজন্য আমি দুইটা বিষয় নিয়ে কথা বলব এটা কি আপনার প্রথম প্রথম কি করে আমাদের চ্যানেলের ভিডিও বানানোর জন্য সাবস্ক্রাইবার বাড়ানোর জন্য কিন্তু অনেক বড় বড় ইউটিউব চ্যানেলে কমেন্ট বক্সে যে আমাদের ভিডিও লিংকটা পেস্ট করে দে এটা কখনোই করবেন না এটা কিন্তু এসএমএস চলে যায় এ জিনিসটা ইউটিউব কখনো গ্রহণ করে না ইউটিউব ফেসবুকে কোন বড় বড় চ্যানেল আপনি যখন এই ধরনের কমেন্ট করবেন আপনার চ্যানেলে কমিউনিটি গাইডলাইন স্ট্রাইক আসতে পারে সে ক্ষেত্রে আপনি অত্যন্ত সাবধানে থাকবেন আপনার চ্যানেলে যদি কমিউনিটি বা কপিরাইট এই দুইটা থেকে যেকোনো একটা স্ট্রাইক আসে তাহলে কিন্তু আপনি কখনোই মনিটাইজেশন পাবেন।

 

সেই জিনিসটা অত্যন্ত গুরুত্ব সহকারে আপনারা দেখবেন সেকেন্ডে যে জিনিসটা কথা বলব কমিউনিটি গাইডলাইন এর ভিতর সেটা হলো মিস লিডিং মেটাডাটা মিটিং এর ভিতরে অনেকগুলো গুরুত্বপূর্ণ ছোট ছোট সেক্টর চলে আসে সেই গুলোর ভিতরে প্রথম যে জিনিসটা আছে সেটা হল থামনিল ভিডিওর সেকেন্ডে যে জিনিসটা আসলে সেটা হল ভিডিও টাইটেল তারপরে থার্ড ইয়ার ভিডিও ডেসক্রিপশন বক্সে লেখালেখি গুলোর তারপরে পড়তে আসে হল আপনার ভিডিওটার ভিতরে আমি প্রথমে শুরু করতে চাই ভিডিও থামনেল টা নিয়ে আমরা কোন ইউটিউবে অনেক এরকম ভিডিও দেখতে পারি যে ঠান্ডা এক ধরনের তৈরি করেছেন কিন্তু ডাউনলোড ক্লিক করার পরে দেখা যায় সে ভিডিওটা আরেকজনের এটা কিন্তু মিস লিডিং ডাটা ডাটা আপনি কখনোই করবেন আপনি যে ভিডিওটা তৈরি করবেন চেষ্টা করবেন সেই ভিডিওটা আরো পড়ে সেই ভিডিওটা বিষয়গুলোর উপর ভিত্তি করে একটা থামনেল তৈরি করা আপনার ভিডিওটা মানুষের চোখে পড়ানোর জন্য বাস বা সাবস্ক্রাইবার বেশি পড়ানোর জন্য কিন্তু আপনি এমন ভুল করবেন না যে আপনি ভিডিওটি তৈরি করলেন এবং সেটার থামনেল তৈরি করলেন আর এক ধরনের সেকেন্ডে যে বিষয়টা আছে সেটা হল ভিডিও টাইটেল টাইটেল টাইটেল এর সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ আপনি ভিডিওতে ঠিক যে বিষয়টা নিয়ে কথা বলেছেন।

সেটা নিয়ে একটা সুন্দর টাইটেল তৈরি করবেন এবং আপনি দেখতে পারেন ইউটিউবে সার্চ করে বা গুগোল এ সার্চ করে দেশ এই বিষয়টার উপর একটা ভালো টাইটেল কি হয় পুরোপুরি কোন টাইটেল আপনি কবে করবেন না এটি নিজে থেকে কিছু কথা এড করে দিবেন ভেতরে কিছু অর্ডার করে দিবেন তারপরে একটা সুন্দর টাইটেল আপনি লিখে দিতে পারেন তারপর আমি চলে আসি ভিডিও ডেসক্রিপশন বক্সে ডেসক্রিপশন বক্সে আপনি আপনার ভিডিওতে কি বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা করেছেন কি বিষয় গুলো দেখেছে এবং কি বিষয়গুলো নিয়ে বলেছেন সেই বিষয়গুলো ধাপে ধাপে আপনি লিখে দিতে পারেন এবং তারপর আপনি কি করতে পারেন ডেসক্রিপশন বক্সে আপনার সোশ্যাল মিডিয়ার লিঙ্ক গুলো এড করে দিতে পারেন এই ভিডিও রিলেটেড কোন ভিডিও দেখলে চ্যানেলে আপলোড করা থাকে সেই ভিডিও লিংক গুলো এড করে দিতে পারেন কিন্তু আপনি কোন থার্ড পার্টি ওয়েবসাইট এর লিঙ্ক আপনার ডেসক্রিপশন বক্সে এড করবেন না এক্ষেত্রে কিন্তু আপনার চ্যানেলে কমিউনিটি গাইডলাইন স্ট্রাইক আসতে পারে সে ক্ষেত্রে অত্যন্ত সাবধানে থাকবেন যে আপনি কোন থার্ড পার্টি ওয়েবসাইট এর লিঙ্ক এড করবেন না যদিও তার পার্টি কোন ওয়েবসাইটের লিংক এড করার প্রয়োজন পড়ে তাহলে সেই ওয়েবসাইট আপনি সুন্দরভাবে বিবেচনা করে দেখবেন সেই ওয়েবসাইটে কোন রকম রং কিছু করছে কেন এরকম ভুল কিছু করছে কিনা তারপর।

থার্ড পার্টি ওয়েবসাইট এর লিঙ্ক আপনার ডেসক্রিপশন বক্সে অ্যাড করবে তারপরও চলে আসে ভিডিও ট্যাগ নিয়ে দিস ইজ দা মোস্ট ইম্পর্টেন্ট অফিসার অনেকেই আমরা কি করে আমরা যে রিলেটেড ভিডিওটি তৈরি করলাম সেই রিলেটেড ভিডিও ট্যাগ ট্যাগ করি না আপনি একটা ভিডিও আপলোড করার ক্ষেত্রে এই যে বিষয়গুলোর থামনেল ট্যাগ ডেসক্রিপশন এই সবগুলোই কিন্তু একে অপরের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ আপনি অবশ্যই এই বিষয়টি খেয়াল করবেন যে আপনার ভিডিওটা কি রিলেটেড সেই রিলেটেড কিছু ট্যাগ আপনি আপনার ভিডিও এড করে দিবেন অনেকেই আমরা কি করে আমরা যে বিষয়টা নিয়ে ভিডিওটা আপলোড করেছে সেই বিষয়টা নিয়ে ইউটিউবে সার্চ দিয়ে তারপর একটা ভিডিও পাই ভালো ভেজ হয়েছে এমন একটা ভিডিও পায় তারপরে সেই ভিডিওটি কি প্যাড ব্যবহার করলো সেইটা আমরা পুরো কপি করে দেন আমরা আমাদের ভিডিওটা কে সুট করেছে এটা কখনোই করবেন না ভাই এটা কিন্তু অত্যন্ত বিপদজনক আর আপনি যদি এটা করেন আপনার চ্যানেলে তো কমিউনিটি গাইডলাইন খুব দ্রুতই আসতে চলেছে এবং আপনি কখনো মনিটাইজেশন পাবে না যদিও বা মনিটাইজেশন আপনার জানা থাকে তাহলে কিন্তু আপনি মনিটাইজেশন সাহারাতে চলেছেন এই বিষয়টা খেয়াল রাখবেন।

এগ্রিমেন্ট কপি পেস্ট করতে পারেন দুই একটা ট্যাগ কবে করবেন তারপর আপনি গুগল থেকে সার্চ দিলেন কিছু ট্যাগ সংগ্রহ করলেন দিলেন যে মানুষ এই বিষয়টা নিয়ে কি কি টাইটেলে বেশি সার্চ করে সেখান থেকে কিছু টাকা কালেকশন করলেন নিজে কিছু ধারনা থেকে আপনি t1 কালেকশন করলেন এবং সেই ট্রাকগুলোর অ্যাড করে দিন তারপরে আপনি আপনার ভিডিওটি আপলোড করে দিন এবং এখান থেকে কিন্তু আপনারা জানতে পারলেন প্রপার একটা ভিডিও আপনি কিভাবে আপনার চ্যানেলে আপলোড করবেন এবং সেই ভিডিওটা থেকে যেন আপনার চ্যানেলে কোন ধরনের সমস্যা না হয় সেই বিষয়টা কিন্তু আপনি জানতে পারলেন তো এবার আমি কথা বলব কপিরাইট বিষয়গুলো নিয়ে করার বিষয়টি খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় আমরা কি করে অন্যের একটা ভিডিও থেকে কিছু ক্লিপ সংগ্রহ করে নিজের কিছু খেলে পেট করে দেন তারপর একটা ভিডিও আপলোড করি এটা ভাই কখনো করবেন না এটা করলে আপনার চ্যানেলে কিন্তু কপিরাইট স্ট্রাইক আসতে পারে খুব সাবধানে বিষয়টা নিয়ে আপনি যে ভিডিওটা তৈরি করবেন সবসময় চেষ্টা করবেন সেই ভিডিওটা আপনি নিজে থেকে তৈরি করার। আজ এ পর্যন্ত।

সবাই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন আর আমাদের সাইটের সাথে থাকবেন নতুন নতুন পোস্ট পেতে এবং আপনাদের বন্ধুদের শেয়ার করে দিবেন পোস্টটি ভালো লাগলে । আমার আর অন্যান্য পোস্ট:

ইউটিউব চ্যানেল কেনা আপনার জন্য কতটুকু লাভজনক?

যে কোন প্রয়োজনে আমার সাথে যোগাযোগ করুন :

facebook contact me

 

ধন্যবাদ সবাইকে

কিভাবে আপনার ইউটিউব চ্যানেল নগদীকরণ করবেন ?

আপডেট সময় : 04:30:44 am, Sunday, 10 April 2022

আসসালামু আলাইকুম!

কেমন আছেন সবাই? আশা করি সবাই ভালো আছেন। আমিও আল্লাহর রহমতে ভালই আছি। আজকে আমি আলোচনা করব কিভাবে আপনার ইউটিউব চ্যানেল নগদীকরণ করবেন?

তো বন্ধুরা চলুন শুরু করা যাক :

কিভাবে আপনার ইউটিউব চ্যানেল নগদীকরণ করবেন

কিভাবে আপনার ইউটিউব চ্যানেল নগদীকরণ করবেন

ইয়েস ফাইনালে আমি সাইট সজীব আপনাদের সামনে হাজির হয়েছি ইউটিউবের মনিটাইজেশন এবং ইউটিউব এর খুঁটিনাটি বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা করার জন্য এবং কিভাবে আপনার ইউটিউব চ্যানেল নগদীকরণ করবেন
বেশ কিছুদিন ধরে আমি খেয়াল করেছি এস্টিমেটিং এর ফেসবুক পেজে এবং গুরুপে বেশি অংশ মেসেজ আসছে ইউটিউবের মনিটাইজেশন বিষয়টি নিয়ে অনেকেই জানতে চাচ্ছেন ভাই আমার 4000 ঘন্টা ওয়াচ টাইম এবং 1000 সাবস্ক্রাইবার কমপ্লিট হয়ে গেছে তারপরও কেন আমি মনিটাইজেশন পারছিনা এই পোস্ট টি থেকে আপনারা জানতে পারবেন যে কেন আপনি মনিটাইজেশন পাচ্ছেন না এবং ঠিক এই মুহূর্তে আপনাকে কী কী করা প্রয়োজন তো চলুন শুরু করা যাক আমার মত যারা ইউটিউবে নতুন কাজ করতে আসেন তারা প্রথমে যে সমস্যাটি পেশ করেন সেটা হলো চ্যানেলের ভিডিও এবং সাবস্ক্রাইব সেকেন্ডের তারা যে বড় ধরনের সমস্যা ফেইস করেন তার চ্যানেলের মনিটাইজেশন নিয়ে অনেকে প্রশ্ন করে থাকেন ভাই কিভাবে আমার ভিডিও সাবস্ক্রাইবার বাড়াবো তোমাকে প্রশ্ন করে থাকেন ভাই কিভাবে আমি মনিটাইজেশন পাবো।

কিভাবে আপনার ইউটিউব চ্যানেল নগদীকরণ করবেন

আমি তো সব নিয়ম ফলো করেছি আমি 4000 ঘন্টা ওয়াচ টাইম 1000 সাবস্ক্রাইব করুন করে ফেলেছি কেন আমি ইউটিউব থেকে মনিটাইজেশন পাচ্ছিনা বর্তমান সময়ে এতটাই স্ট্রীট হয়ে গেছে যে তার হাতে গোনা কয়েকটি চ্যানেলকে মনিটাইজেশন দিচ্ছে এর পেছনে কিন্তু মূল কারণ আমরা নিজেরাই আমরা ছোটখাটো কিছু ভুল করার কারণে আজকে ইউটিউব আমাদের সামনে এতগুলা নিয়ম ছুঁড়ে দিচ্ছে এবং সেগুলো একজন নতুন কন্টিনারের পূরণ করা অনেকটাই কষ্টসাধ্য হয়ে যাইতো এখন আমি আপনাদেরকে শুরু থেকে সবকিছু জানিয়ে দেবো ঠিক আপনাকে কি করা প্রয়োজন এবং কোন নিয়ম গুলো ফলো করতে হবে ঠিক নির্দিষ্ট কি কি কাজ করা প্রয়োজন যার জন্য আপনার সাবস্ক্রাইবার বাড়বে আপনার বয়স বাড়বে এবং আপনি খুব সহজে ক্ষুদ্রতম রিলেশন পেয়ে যাবেন তো অনেকেই জানেন তারপরও আমি বলছি প্রথমে আপনাকে সিলেকশন করতে হবে কন্টেন কন্টেন সিলেকশন আপনার ইউটিউবে আসার পথে একটি ধাঁধা এমন একটা কন্টেন সিলেকসন কোনটা মানুষের কাছে গ্রহণযোগ্য এবং মানুষ যে এটা দেখতে চাই তারপরে যে কথাটি বলবো সেটা হল রেগুলারিটি নিয়মিত ভিডিও আপলোড করতে থাকুন এক সপ্তা একটা আপলোড করলেন পরে দুই সপ্তাহ বাদ দেন আর একটা ভিডিও আপলোড করলেন এরকম কখনো করবেন না আপনি।

কিভাবে আপনার ইউটিউব চ্যানেল নগদীকরণ করবেন

চেষ্টা করবেন রেগুলার ভিডিও আপলোড করার একটা নির্দিষ্ট টাইম সিলেক্ট করে নিন এবং সেই টাইমটা ভিডিও আপলোড করুন এক্ষেত্রে কিভাবে আপনার আপনার সেই টাইমটা বসে থাকবে আপনার একটা ভিডিও আপলোড এর অপেক্ষায় তো আপনি এজন্য ট্রান্সলেশন করে নিবেন সেকেন্ড যে কথাটি আমি বলব আপনাদের কে সেটা হল চ্যানেল কাস্টমাইজেশন এটা অনেকেই গুরুত্ব দেন না কিন্তু এটা কিন্তু খুব ইম্পর্টেন্ট একটা বিষয় জায়গায় আপনাকে প্রথমে আপনার চ্যানেলটা সুন্দরভাবে গড়ে তুলতে হবে এমন ভাবে আপনার চ্যানেলটা সাজিয়ে গুছিয়ে রাখুন যেন একটা নতুন বিবার আপনার চ্যানেলের ঢুকলে সে যেন সাবস্ক্রাইব না করে বের না হয় এটা নতুন বিভাজন আপনার চ্যানেলের ঢুকবে সে যখন আপনার একটা ভিডিও দেখবে তার ভালো লাগবে সেকেন্ড শেয়ার একটা ভিডিও দেখবে তার ভালো লাগবে এমন করতে করতে সে একসময় আপনার চ্যানেলটা সাবস্ক্রাইব করতে বাধ্য হবে তারপরে আপনার চ্যানেলটা থেকে বের হবে ঠিক এমন ভাবে আপনি কোন ট্রেন গুলো সাজানো এমনভাবে আপনার চ্যানেলটা কাস্টমাইজেশন করুন আর আপনার যদি কাস্টমাইজেশন নিয়ে কোন প্রবলেম থাকে তাহলে এই বাটনে ক্লিক করলে একটা ভিডিও দেখতে পারবেন চ্যানেল কাস্টমাইজেশন নিয়ে সেটা পরবর্তীতে দেখে আসতে পারেন আপনি আপনার চ্যানেলের জন্য একটা নির্দিষ্ট লোগো তৈরি করুন একটা সুন্দর লোগো তৈরি করুন একটা নির্দিষ্ট কভার ফটো তৈরি করুন।

এবং সেটা আপনার চ্যানেলের সাথে এড করে দিন আপলোড করে দিন তাহলে দেখবেন আপনার চ্যানেল টা দেখতে আগের তুলনায় অনেক বেশি সুন্দর হবে ভিডিওগুলো একটা নির্দিষ্ট ধাপে ধাপে তৈরি করুন এবং সুন্দরভাবে প্লেলিস্ট তৈরি করুন এবং সুন্দরভাবে চ্যানেলটির কাস্টমাইজেশন করুন চ্যানেলটি সাজিয়ে তুলুন তারপর একটা জিনিস আপনাদের যেটা বলবো সেটা হলো আপনাকে প্রমাণ করতে হবে আপনি একজন রিয়েল কন্টেন ক্রিয়ার কথা কিন্তু তিনি বলেন রিয়েল কন্টেন ক্রিয়ার এটা প্রমাণ করা কিন্তু খুবই গুরুত্বপূর্ণ আপনার মনিটাইজেশনের ক্ষেত্রে এখন আপনি বলবেন ভাই আমি ইউটিউব কে কিভাবে বুঝাবো আমি একজন রিয়েল কন্টেন কিউরেটর ইউটিউব এ জন্য আপনাকে অনেক পথ খুলে রেখেছে কিন্তু অনেকে এই জিনিসটা জানেন না আপনি যে মেইল টা দিয়ে ইউটিউব অ্যাকাউন্ট ক্রিয়েট করেছেন সেই ইমেইলের পার্সোনাল ইনফরমেশন এ চলে যান এবং সেই জায়গায় আপনার পার্সোনাল ইনফরমেশন গুলো এড করে নিন যেমন ধরুন আপনি কোথায় থাকেন আপনার এডুকেশনাল ব্যাকগ্রাউন্ড আপনার জন্ম তারিখ আপনার কান্ট্রি নেম আপনি বর্তমানে কোথায় থাকেন কোথায় আপনার জন্ম হয়েছে এসব কোনো পার্সোনাল ইনফরমেশন আপনি আপনার চ্যানেলের মেইলে অ্যাড করে দিন সেকেন্ডে আপনি আপনার ইউটিউব চ্যানেলের একটা ফেসবুকের গ্রুপ একটা ফেসবুকের পেজ এবং ইনস্টাগ্রামের একটা অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন।

টুইটারের একটা একাউন্ট খুলতে পারেন গুগল প্লাসের অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন এরকম বিভিন্ন ধরনের সোশ্যাল মিডিয়ার অ্যাকাউন্টগুলো ক্রিকেট করুন এবং সেগুলো আপনার ইউটিউব চ্যানেলের অ্যাড করে দিন এ ক্ষেত্রে কিভাবে ইউটিউবের বুঝতে সুবিধা হবে যে আপনি একজন ক্যারিয়ের মানুষ রিয়েল কন্টাক্ট নেটওয়ার্ক আপনি ইউটিউবে এখানে কাজ করতে এসেছেন আপনি রেগুলার এখানে কাজ করতে চান এবং এখান থেকে আপনি আসলে মানুষকে কিছু শেখাতে চান শুধুমাত্র এই ছোটখাটো কাজগুলো করলে কিন্তু ইউটিউব আপনাকে মনিটাইজেশন দিবে এমন কোন কথা নাই এখন অনেক বিষয় বাকি আছে সবগুলো বিষয়ই আমি আপনাদের সামনে তুলে ধরবো তারপরে যে জিনিসটা বলতেই হয় ফেস ক্রিম ভিডিও আমরা যে কনটেন্ট এর উপর ভিডিও বের করে থাকি সেটা হয়তো গুরুত্বপূর্ণ আসেনা ফেইসক্যাম জিনিসটা তারপর বেস ক্যাম্পে করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ আপনার নতুন মনিটাইজেশন পাওয়ার জন্য আপনি যদি আমার চ্যানেলে দেখতে পারবেন আমার চ্যানেলে কিন্তু নাইন্টি পার্সেন্ট ভিডিও আছে ফেসবুক টা তো আমি নিজে প্রেজেন্ট করে আমার ভিডিওতে আপনি চেষ্টা করবেন আপনি যে ভিডিও তৈরি করবেন সেই ভিডিও আপনার সামনে এসে কিছু কথা বলবেন আপনি শুরুতে কিছু কথা বললেন এবং ভিডিও লাস্টে কিছু কথা বলেন আপনি সেটা ফেইসক্যাম করে আপনার ভিডিওর সাথে এড করে দিলেন।

তারপর আমি যে জিনিস গুলো নিয়ে কথা বলব সেগুলো খুবই ইমপরটেন্ট বিষয়গুলোর ভেতরে দুইটা জিনিস আমি রেখেছি সেটা হল ইউটিউব কমিউনিটি গাইডলাইন এবং কপিরাইট পলিসি এই দুইটা বিষয় যায় তাহলে কিন্তু অনেক বিষয় চলে আসে তো আমি এখান থেকে কিছু কিছু বিষয় আপনাদের সামনে তুলে ধরার চেষ্টা করব যে বিষয়গুলো যদি আপনারা একটু মানতে পারেন তাহলে আপনি খুব সহজেই আপনার চ্যানেল থেকে মনিটাইজেশন পেতে পারেন কমিউনিটি গাইডলাইন এর ভিতরে আমি দুইটা জিনিস নিয়ে কথা বলবো এখন আর একটুও মিস লিডিং মেটাডাটা আমরা প্রথমে করে থাকি এজন্য আমি দুইটা বিষয় নিয়ে কথা বলব এটা কি আপনার প্রথম প্রথম কি করে আমাদের চ্যানেলের ভিডিও বানানোর জন্য সাবস্ক্রাইবার বাড়ানোর জন্য কিন্তু অনেক বড় বড় ইউটিউব চ্যানেলে কমেন্ট বক্সে যে আমাদের ভিডিও লিংকটা পেস্ট করে দে এটা কখনোই করবেন না এটা কিন্তু এসএমএস চলে যায় এ জিনিসটা ইউটিউব কখনো গ্রহণ করে না ইউটিউব ফেসবুকে কোন বড় বড় চ্যানেল আপনি যখন এই ধরনের কমেন্ট করবেন আপনার চ্যানেলে কমিউনিটি গাইডলাইন স্ট্রাইক আসতে পারে সে ক্ষেত্রে আপনি অত্যন্ত সাবধানে থাকবেন আপনার চ্যানেলে যদি কমিউনিটি বা কপিরাইট এই দুইটা থেকে যেকোনো একটা স্ট্রাইক আসে তাহলে কিন্তু আপনি কখনোই মনিটাইজেশন পাবেন।

 

সেই জিনিসটা অত্যন্ত গুরুত্ব সহকারে আপনারা দেখবেন সেকেন্ডে যে জিনিসটা কথা বলব কমিউনিটি গাইডলাইন এর ভিতর সেটা হলো মিস লিডিং মেটাডাটা মিটিং এর ভিতরে অনেকগুলো গুরুত্বপূর্ণ ছোট ছোট সেক্টর চলে আসে সেই গুলোর ভিতরে প্রথম যে জিনিসটা আছে সেটা হল থামনিল ভিডিওর সেকেন্ডে যে জিনিসটা আসলে সেটা হল ভিডিও টাইটেল তারপরে থার্ড ইয়ার ভিডিও ডেসক্রিপশন বক্সে লেখালেখি গুলোর তারপরে পড়তে আসে হল আপনার ভিডিওটার ভিতরে আমি প্রথমে শুরু করতে চাই ভিডিও থামনেল টা নিয়ে আমরা কোন ইউটিউবে অনেক এরকম ভিডিও দেখতে পারি যে ঠান্ডা এক ধরনের তৈরি করেছেন কিন্তু ডাউনলোড ক্লিক করার পরে দেখা যায় সে ভিডিওটা আরেকজনের এটা কিন্তু মিস লিডিং ডাটা ডাটা আপনি কখনোই করবেন আপনি যে ভিডিওটা তৈরি করবেন চেষ্টা করবেন সেই ভিডিওটা আরো পড়ে সেই ভিডিওটা বিষয়গুলোর উপর ভিত্তি করে একটা থামনেল তৈরি করা আপনার ভিডিওটা মানুষের চোখে পড়ানোর জন্য বাস বা সাবস্ক্রাইবার বেশি পড়ানোর জন্য কিন্তু আপনি এমন ভুল করবেন না যে আপনি ভিডিওটি তৈরি করলেন এবং সেটার থামনেল তৈরি করলেন আর এক ধরনের সেকেন্ডে যে বিষয়টা আছে সেটা হল ভিডিও টাইটেল টাইটেল টাইটেল এর সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ আপনি ভিডিওতে ঠিক যে বিষয়টা নিয়ে কথা বলেছেন।

সেটা নিয়ে একটা সুন্দর টাইটেল তৈরি করবেন এবং আপনি দেখতে পারেন ইউটিউবে সার্চ করে বা গুগোল এ সার্চ করে দেশ এই বিষয়টার উপর একটা ভালো টাইটেল কি হয় পুরোপুরি কোন টাইটেল আপনি কবে করবেন না এটি নিজে থেকে কিছু কথা এড করে দিবেন ভেতরে কিছু অর্ডার করে দিবেন তারপরে একটা সুন্দর টাইটেল আপনি লিখে দিতে পারেন তারপর আমি চলে আসি ভিডিও ডেসক্রিপশন বক্সে ডেসক্রিপশন বক্সে আপনি আপনার ভিডিওতে কি বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা করেছেন কি বিষয় গুলো দেখেছে এবং কি বিষয়গুলো নিয়ে বলেছেন সেই বিষয়গুলো ধাপে ধাপে আপনি লিখে দিতে পারেন এবং তারপর আপনি কি করতে পারেন ডেসক্রিপশন বক্সে আপনার সোশ্যাল মিডিয়ার লিঙ্ক গুলো এড করে দিতে পারেন এই ভিডিও রিলেটেড কোন ভিডিও দেখলে চ্যানেলে আপলোড করা থাকে সেই ভিডিও লিংক গুলো এড করে দিতে পারেন কিন্তু আপনি কোন থার্ড পার্টি ওয়েবসাইট এর লিঙ্ক আপনার ডেসক্রিপশন বক্সে এড করবেন না এক্ষেত্রে কিন্তু আপনার চ্যানেলে কমিউনিটি গাইডলাইন স্ট্রাইক আসতে পারে সে ক্ষেত্রে অত্যন্ত সাবধানে থাকবেন যে আপনি কোন থার্ড পার্টি ওয়েবসাইট এর লিঙ্ক এড করবেন না যদিও তার পার্টি কোন ওয়েবসাইটের লিংক এড করার প্রয়োজন পড়ে তাহলে সেই ওয়েবসাইট আপনি সুন্দরভাবে বিবেচনা করে দেখবেন সেই ওয়েবসাইটে কোন রকম রং কিছু করছে কেন এরকম ভুল কিছু করছে কিনা তারপর।

থার্ড পার্টি ওয়েবসাইট এর লিঙ্ক আপনার ডেসক্রিপশন বক্সে অ্যাড করবে তারপরও চলে আসে ভিডিও ট্যাগ নিয়ে দিস ইজ দা মোস্ট ইম্পর্টেন্ট অফিসার অনেকেই আমরা কি করে আমরা যে রিলেটেড ভিডিওটি তৈরি করলাম সেই রিলেটেড ভিডিও ট্যাগ ট্যাগ করি না আপনি একটা ভিডিও আপলোড করার ক্ষেত্রে এই যে বিষয়গুলোর থামনেল ট্যাগ ডেসক্রিপশন এই সবগুলোই কিন্তু একে অপরের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ আপনি অবশ্যই এই বিষয়টি খেয়াল করবেন যে আপনার ভিডিওটা কি রিলেটেড সেই রিলেটেড কিছু ট্যাগ আপনি আপনার ভিডিও এড করে দিবেন অনেকেই আমরা কি করে আমরা যে বিষয়টা নিয়ে ভিডিওটা আপলোড করেছে সেই বিষয়টা নিয়ে ইউটিউবে সার্চ দিয়ে তারপর একটা ভিডিও পাই ভালো ভেজ হয়েছে এমন একটা ভিডিও পায় তারপরে সেই ভিডিওটি কি প্যাড ব্যবহার করলো সেইটা আমরা পুরো কপি করে দেন আমরা আমাদের ভিডিওটা কে সুট করেছে এটা কখনোই করবেন না ভাই এটা কিন্তু অত্যন্ত বিপদজনক আর আপনি যদি এটা করেন আপনার চ্যানেলে তো কমিউনিটি গাইডলাইন খুব দ্রুতই আসতে চলেছে এবং আপনি কখনো মনিটাইজেশন পাবে না যদিও বা মনিটাইজেশন আপনার জানা থাকে তাহলে কিন্তু আপনি মনিটাইজেশন সাহারাতে চলেছেন এই বিষয়টা খেয়াল রাখবেন।

এগ্রিমেন্ট কপি পেস্ট করতে পারেন দুই একটা ট্যাগ কবে করবেন তারপর আপনি গুগল থেকে সার্চ দিলেন কিছু ট্যাগ সংগ্রহ করলেন দিলেন যে মানুষ এই বিষয়টা নিয়ে কি কি টাইটেলে বেশি সার্চ করে সেখান থেকে কিছু টাকা কালেকশন করলেন নিজে কিছু ধারনা থেকে আপনি t1 কালেকশন করলেন এবং সেই ট্রাকগুলোর অ্যাড করে দিন তারপরে আপনি আপনার ভিডিওটি আপলোড করে দিন এবং এখান থেকে কিন্তু আপনারা জানতে পারলেন প্রপার একটা ভিডিও আপনি কিভাবে আপনার চ্যানেলে আপলোড করবেন এবং সেই ভিডিওটা থেকে যেন আপনার চ্যানেলে কোন ধরনের সমস্যা না হয় সেই বিষয়টা কিন্তু আপনি জানতে পারলেন তো এবার আমি কথা বলব কপিরাইট বিষয়গুলো নিয়ে করার বিষয়টি খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় আমরা কি করে অন্যের একটা ভিডিও থেকে কিছু ক্লিপ সংগ্রহ করে নিজের কিছু খেলে পেট করে দেন তারপর একটা ভিডিও আপলোড করি এটা ভাই কখনো করবেন না এটা করলে আপনার চ্যানেলে কিন্তু কপিরাইট স্ট্রাইক আসতে পারে খুব সাবধানে বিষয়টা নিয়ে আপনি যে ভিডিওটা তৈরি করবেন সবসময় চেষ্টা করবেন সেই ভিডিওটা আপনি নিজে থেকে তৈরি করার। আজ এ পর্যন্ত।

সবাই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন আর আমাদের সাইটের সাথে থাকবেন নতুন নতুন পোস্ট পেতে এবং আপনাদের বন্ধুদের শেয়ার করে দিবেন পোস্টটি ভালো লাগলে । আমার আর অন্যান্য পোস্ট:

ইউটিউব চ্যানেল কেনা আপনার জন্য কতটুকু লাভজনক?

যে কোন প্রয়োজনে আমার সাথে যোগাযোগ করুন :

facebook contact me

 

ধন্যবাদ সবাইকে