ঢাকা 11:11 am, Saturday, 4 February 2023

i Phone;অ্যাপলের আইফোন 2022

  • আপডেট সময় : 10:13:03 pm, Friday, 16 September 2022 85 বার পড়া হয়েছে

i Phone অ্যাপলের আইফোন-বিশ্বের অন্যান্য ফোনের তুলনায় আইফোন অনেক জনপ্রিয়। বছরে শুধু কয়েকটি সংস্করণ আসে আইফোনের। তবুও দ্রুত শেষ হয়ে যায় আইফোন এর স্টক। এমন কি নতুন সংস্করণের আইফোন কেনার জন্য অ্যাপল স্টোরে লেগে যায় দীর্ঘ লাইন। কিন্তু ঠিক কি কারণে জনপ্রিয় অ্যাপল কোম্পানির আইফোন । তাই জনাবো আজ। তবে চলুন জেনে নেই

আইফোনের অনন্য নকশাঃ

অনন্য নকশার কারণেই অন্যান্য ফোন থেকে খুব সহজেই চিনে ফেলা যায় কোনটা আইফোন।
এই টির ১টি মাত্র বাটন দিয়ে ফোনের মেইন মেনুতে প্রবেশ করা যায় নজরকাড়া চাকচিক্য রয়েছে এই টি। অন্যান্য ফোন বিশেষ করে অ্যান্ড্রয়েড ফোনে একাধিক বাটন থাকে। অনেকের কাছে এই অতিরিক্ত বাটন একটা বাড়তি ঝামেলা । সফটওয়্যার পলিশড ও স্মুদ একটি অভিজ্ঞতা পান আইফোন ব্যবহারকারীরা। প্রযুক্তিপ্রিয় মানুষের পাশাপাশি সাধারণ মানুষের কাছে অ্যাপলের এমন ডিজাইন ল্যাংগুয়েজ মুগ্ধতার প্রতীক বলা যায়।

সর্বোচ্চ নিরাপত্তাঃ

অন্যান্য ফোন ব্যবহারকারীদের বিভিন্ন গোপনীয় ও প্রয়োজনীয় তথ্য সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়তে দেখা যায়। কিন্তু একজন Apple Phone ব্যবহারকারীর তথ্য হাতিয়ে নেওয়া এতো সহজ নয়। বরাবরই নিজেদের তৈরি পণ্যগুলোকে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা দিয়ে আসছে অ্যাপল। তা আইফোন এর ক্ষেত্রে ব্যতিক্রম নয়। একজন হ্যাকার চাইলেও সহজেই একটা আইফোন হ্যাক করতে পারবেন না। ব্যবহারকারীর অনুমতি ছাড়া এর কোন তথ্য বের করতে চাওয়া আপাতদৃষ্টিতে অসম্ভব।

i Phone অ্যাপলের আইফোন

মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা কয়েক বছর আগে সন্দেহের কারণে একজন আইফোন ব্যবহারকারীর ফোনের লক খোলার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়ে অ্যাপলের দারস্থ হয়। তবে মজার ব্যাপার হলো অ্যাপল কোম্পানি কিন্তু ওই ফোনের লক খুলে দেয় নি। যার ফলে বলা যায়, অ্যাপল কোম্পানি Apple Phone ব্যবহারকারীর ব্যক্তিগত নিরাপত্তাকে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা দিয়ে থাকে। যার কারণেই প্রযুক্তিপ্রিয় দের আইফোন এত জনপ্রিয়।

i Phone অ্যাপলের আইফোন

ফোনের অপারেটিং সিস্টেমের মধ্যে সবচেয়ে নিরাপদ অপারেটিং সিস্টেম বলা হয় আইফোনের অপারেটিং সিস্টেমকে।।
এন্ড্রয়েড ফোনে থার্টপার্টি অ্যাপ ঢুকে পড়ার সম্ভাবনা থাকে ( আবার ঢুকেও পড়ে)। কিন্তু অ্যাপলের অ্যাপ শুধুমাত্র অ্যাপল স্টোর থেকেই ডাউনলোড করা যায়। যার কারণে ভাইরাস & ম্যালওয়্যার এর ঝুকি একেবারেই কম।। তাছাড়া ফোন হারিয়ে গেলে ” ফাইন্ড মাই অ্যাপ ” ব্যবহার করে খুব সহজেই ফোনের লোকেশন খুজে পাওয়া যায়।

হার্ডওয়্যার অ্যান্ড সফটওয়্যারঃ

অন্যান্য ফোন কোম্পানিগুলো যেখানে থার্ডপার্টি অ্যাপ ব্যবহার করে সেখানে আইফোন নিজস্ব হার্ডওয়্যার অ্যান্ড সফটওয়্যার তৈরি করে থাকে। প্রসেসর থেকে শুরু করে র‍্যাম, ক্যামেরা, ফোনের বডি, সবকিছুই অ্যাপল কোম্পানি তৈরি করে থাকে। তাই ব্যবহারকারীর চাহিদা অনুযায়ী সবকিছু করে অ্যাপল। অ্যাপলের নিজস্ব হার্ডওয়্যার অ্যান্ড সফটওয়্যার তৈরির বৈশিষ্ট্যই তার জনপ্রিয়তার মূখ্য কারণ।

অপারেটিং সিস্টেমঃ

অন্য ফোনের মতো আইফোন এর সব কাজ একই হলেও Apple Phone জনপ্রিয় হবার আরেকটি কারণ হলো এর নিজের অপারেটিং সিস্টেম। আইফোনের প্রতিটি অপারেটিং সিস্টেম এ থাকে নিত্যনতুন চমক। আইফোন তাদের অপারেটিং সিস্টেমে কিছু গোপন ফিচার দিয়ে আইফোন ব্যবহারকারীদের চমক দিয়ে আসছে।

আ্যাপলের ইকোসিস্টেমঃ

অ্যাপলের ইকোসিস্টেম হলো কিছু Apple Phone ডিভাইসের মিলিত পরিবার। একাধিক অ্যাপল ডিভাইস একসাথে ব্যবহার করতে পারে অ্যাপল ইউজাররা । অ্যাপল ইকোসিস্টেম ব্যবহারকারীর জীবনকে সহজ করে দেয়। অ্যাপলের আইফোন ও ম্যাকবুক ইকোসিস্টেমে যুক্ত থাকলে আইফোনে কল আসলে ম্যাকবুকে কাজ করা অবস্থায় ম্যাকবুক দিয়ে কল রিসিভ করা যায়৷। এই ইকোসিস্টেমের কারণেও আইফোন জনপ্রিয়।।।

বিক্রত্তোর সেবাঃ

অ্যাপলের কোন ডিভাইস ক্র‍য় করলে বছরের পর বছর পরেও Apple Phone সার্ভিস সেন্টারে বিক্রত্তোর সেবা পাওয়া যায়।। এই সার্ভিস সেন্টার থেকে যেকোনো সময় যেকোনো সমস্যার সমাধান নেওয়া যায়। অনেক আগের আইফোনগুলোতেও এখনো সফটওয়্যার আপডেট দেওয়া হয় । যার ফলে আগের ফোনগুলোও নতুনের মতো কাজ করে।।

কিন্তু দাম বেশি কেনঃ

আপ্পল ফোন এর দাম বেশি হবার কারণ হলো তারা নিজেদের অপারেটিং সিস্টেম নিজেরা তৈরি করে থাকে। এন্ড্রয়েড ফোন অন্য কোম্পানি থেকে তাদের ওএস কিনে নেয়, এতে তাদের ব্যয় অনেক কমে যায়। কিন্তু অ্যাপল কোম্পানি নিজস্ব ওএস এর পাশাপাশি তাদের ফোনের জন্য নিজেরা হার্ডওয়্যার অ্যান্ড সফটওয়্যার বানিয়ে থাকে, তাই তাদের খরচ বেড়ে যায়।

i Phone অ্যাপলের আইফোন

এই ব্যয় মেটানোর জন্যই আপ্পল ফোন এর দাম বেড়ে যায়।। যেহেতু অ্যাপল কোম্পানি নিজেরাই নিজেদের প্রসেসর তৈরি করে তাই অন্য ফোনের থেকে আইফোন দ্রুত কাজ করে। । তাছাড়া সর্বোচ্চ নিরাপত্তা দেওয়ার কারণে অ্যাপল কোম্পানি প্রচুর পরিমাণ টাকা ব্যয় করে। যার কারণে আইফোনের দাম বেড়ে যায়। মজার কথা হলো অ্যাপল নিম্ন বাজারে প্রতিযোগিতা করে না।

i Phone অ্যাপলের আইফোন

এই হলো অ্যাপল কোম্পানির আপ্পল ফোন নিয়ে তথ্য ও দাম বেশি হবার কারণ । আশাকরি আপনাদের ভালো লেগেছে।

ধন্যবাদ।

See More …….

ড্রোন কি? যুদ্ধক্ষেত্রে ড্রোনের ব্যবহার।

ট্যাগস :

i Phone;অ্যাপলের আইফোন 2022

আপডেট সময় : 10:13:03 pm, Friday, 16 September 2022

i Phone অ্যাপলের আইফোন-বিশ্বের অন্যান্য ফোনের তুলনায় আইফোন অনেক জনপ্রিয়। বছরে শুধু কয়েকটি সংস্করণ আসে আইফোনের। তবুও দ্রুত শেষ হয়ে যায় আইফোন এর স্টক। এমন কি নতুন সংস্করণের আইফোন কেনার জন্য অ্যাপল স্টোরে লেগে যায় দীর্ঘ লাইন। কিন্তু ঠিক কি কারণে জনপ্রিয় অ্যাপল কোম্পানির আইফোন । তাই জনাবো আজ। তবে চলুন জেনে নেই

আইফোনের অনন্য নকশাঃ

অনন্য নকশার কারণেই অন্যান্য ফোন থেকে খুব সহজেই চিনে ফেলা যায় কোনটা আইফোন।
এই টির ১টি মাত্র বাটন দিয়ে ফোনের মেইন মেনুতে প্রবেশ করা যায় নজরকাড়া চাকচিক্য রয়েছে এই টি। অন্যান্য ফোন বিশেষ করে অ্যান্ড্রয়েড ফোনে একাধিক বাটন থাকে। অনেকের কাছে এই অতিরিক্ত বাটন একটা বাড়তি ঝামেলা । সফটওয়্যার পলিশড ও স্মুদ একটি অভিজ্ঞতা পান আইফোন ব্যবহারকারীরা। প্রযুক্তিপ্রিয় মানুষের পাশাপাশি সাধারণ মানুষের কাছে অ্যাপলের এমন ডিজাইন ল্যাংগুয়েজ মুগ্ধতার প্রতীক বলা যায়।

সর্বোচ্চ নিরাপত্তাঃ

অন্যান্য ফোন ব্যবহারকারীদের বিভিন্ন গোপনীয় ও প্রয়োজনীয় তথ্য সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়তে দেখা যায়। কিন্তু একজন Apple Phone ব্যবহারকারীর তথ্য হাতিয়ে নেওয়া এতো সহজ নয়। বরাবরই নিজেদের তৈরি পণ্যগুলোকে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা দিয়ে আসছে অ্যাপল। তা আইফোন এর ক্ষেত্রে ব্যতিক্রম নয়। একজন হ্যাকার চাইলেও সহজেই একটা আইফোন হ্যাক করতে পারবেন না। ব্যবহারকারীর অনুমতি ছাড়া এর কোন তথ্য বের করতে চাওয়া আপাতদৃষ্টিতে অসম্ভব।

i Phone অ্যাপলের আইফোন

মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা কয়েক বছর আগে সন্দেহের কারণে একজন আইফোন ব্যবহারকারীর ফোনের লক খোলার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়ে অ্যাপলের দারস্থ হয়। তবে মজার ব্যাপার হলো অ্যাপল কোম্পানি কিন্তু ওই ফোনের লক খুলে দেয় নি। যার ফলে বলা যায়, অ্যাপল কোম্পানি Apple Phone ব্যবহারকারীর ব্যক্তিগত নিরাপত্তাকে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা দিয়ে থাকে। যার কারণেই প্রযুক্তিপ্রিয় দের আইফোন এত জনপ্রিয়।

i Phone অ্যাপলের আইফোন

ফোনের অপারেটিং সিস্টেমের মধ্যে সবচেয়ে নিরাপদ অপারেটিং সিস্টেম বলা হয় আইফোনের অপারেটিং সিস্টেমকে।।
এন্ড্রয়েড ফোনে থার্টপার্টি অ্যাপ ঢুকে পড়ার সম্ভাবনা থাকে ( আবার ঢুকেও পড়ে)। কিন্তু অ্যাপলের অ্যাপ শুধুমাত্র অ্যাপল স্টোর থেকেই ডাউনলোড করা যায়। যার কারণে ভাইরাস & ম্যালওয়্যার এর ঝুকি একেবারেই কম।। তাছাড়া ফোন হারিয়ে গেলে ” ফাইন্ড মাই অ্যাপ ” ব্যবহার করে খুব সহজেই ফোনের লোকেশন খুজে পাওয়া যায়।

হার্ডওয়্যার অ্যান্ড সফটওয়্যারঃ

অন্যান্য ফোন কোম্পানিগুলো যেখানে থার্ডপার্টি অ্যাপ ব্যবহার করে সেখানে আইফোন নিজস্ব হার্ডওয়্যার অ্যান্ড সফটওয়্যার তৈরি করে থাকে। প্রসেসর থেকে শুরু করে র‍্যাম, ক্যামেরা, ফোনের বডি, সবকিছুই অ্যাপল কোম্পানি তৈরি করে থাকে। তাই ব্যবহারকারীর চাহিদা অনুযায়ী সবকিছু করে অ্যাপল। অ্যাপলের নিজস্ব হার্ডওয়্যার অ্যান্ড সফটওয়্যার তৈরির বৈশিষ্ট্যই তার জনপ্রিয়তার মূখ্য কারণ।

অপারেটিং সিস্টেমঃ

অন্য ফোনের মতো আইফোন এর সব কাজ একই হলেও Apple Phone জনপ্রিয় হবার আরেকটি কারণ হলো এর নিজের অপারেটিং সিস্টেম। আইফোনের প্রতিটি অপারেটিং সিস্টেম এ থাকে নিত্যনতুন চমক। আইফোন তাদের অপারেটিং সিস্টেমে কিছু গোপন ফিচার দিয়ে আইফোন ব্যবহারকারীদের চমক দিয়ে আসছে।

আ্যাপলের ইকোসিস্টেমঃ

অ্যাপলের ইকোসিস্টেম হলো কিছু Apple Phone ডিভাইসের মিলিত পরিবার। একাধিক অ্যাপল ডিভাইস একসাথে ব্যবহার করতে পারে অ্যাপল ইউজাররা । অ্যাপল ইকোসিস্টেম ব্যবহারকারীর জীবনকে সহজ করে দেয়। অ্যাপলের আইফোন ও ম্যাকবুক ইকোসিস্টেমে যুক্ত থাকলে আইফোনে কল আসলে ম্যাকবুকে কাজ করা অবস্থায় ম্যাকবুক দিয়ে কল রিসিভ করা যায়৷। এই ইকোসিস্টেমের কারণেও আইফোন জনপ্রিয়।।।

বিক্রত্তোর সেবাঃ

অ্যাপলের কোন ডিভাইস ক্র‍য় করলে বছরের পর বছর পরেও Apple Phone সার্ভিস সেন্টারে বিক্রত্তোর সেবা পাওয়া যায়।। এই সার্ভিস সেন্টার থেকে যেকোনো সময় যেকোনো সমস্যার সমাধান নেওয়া যায়। অনেক আগের আইফোনগুলোতেও এখনো সফটওয়্যার আপডেট দেওয়া হয় । যার ফলে আগের ফোনগুলোও নতুনের মতো কাজ করে।।

কিন্তু দাম বেশি কেনঃ

আপ্পল ফোন এর দাম বেশি হবার কারণ হলো তারা নিজেদের অপারেটিং সিস্টেম নিজেরা তৈরি করে থাকে। এন্ড্রয়েড ফোন অন্য কোম্পানি থেকে তাদের ওএস কিনে নেয়, এতে তাদের ব্যয় অনেক কমে যায়। কিন্তু অ্যাপল কোম্পানি নিজস্ব ওএস এর পাশাপাশি তাদের ফোনের জন্য নিজেরা হার্ডওয়্যার অ্যান্ড সফটওয়্যার বানিয়ে থাকে, তাই তাদের খরচ বেড়ে যায়।

i Phone অ্যাপলের আইফোন

এই ব্যয় মেটানোর জন্যই আপ্পল ফোন এর দাম বেড়ে যায়।। যেহেতু অ্যাপল কোম্পানি নিজেরাই নিজেদের প্রসেসর তৈরি করে তাই অন্য ফোনের থেকে আইফোন দ্রুত কাজ করে। । তাছাড়া সর্বোচ্চ নিরাপত্তা দেওয়ার কারণে অ্যাপল কোম্পানি প্রচুর পরিমাণ টাকা ব্যয় করে। যার কারণে আইফোনের দাম বেড়ে যায়। মজার কথা হলো অ্যাপল নিম্ন বাজারে প্রতিযোগিতা করে না।

i Phone অ্যাপলের আইফোন

এই হলো অ্যাপল কোম্পানির আপ্পল ফোন নিয়ে তথ্য ও দাম বেশি হবার কারণ । আশাকরি আপনাদের ভালো লেগেছে।

ধন্যবাদ।

See More …….

ড্রোন কি? যুদ্ধক্ষেত্রে ড্রোনের ব্যবহার।