ঢাকা 11:42 am, Saturday, 4 February 2023

মৃত ব্যক্তি গোসলে বড়ইপাতা

  • আপডেট সময় : 12:03:32 pm, Tuesday, 11 October 2022 71 বার পড়া হয়েছে

যে একটি কারণে বড়ই পাতা মেশানো পানিতে মৃত ব্যক্তিকে গোসল দেয়া হয়

মৃত ব্যক্তি গোসলে বড়ইপাতা-একটা সময় আমি আপনি সবাই মারা যাব এমনকি মালাকুল মউত আজরাইলও মৃত্যুবরণ করবে। কিন্তু মুসলিমরা মারা গেলে গোসলের সময় বড়ই পাতা মেশানো পানি দিয়ে গোসল দেয়া হয় কেন এর রহস্য কি সেই বিষয়ে আলোচনা করবো এই আর্টিকেলে ইনশাআল্লাহ। এই রহস্য সম্পর্কে জানতে আর্টিকেলটি সম্পূর্ণ পড়বেন বলে আশা রাখি। তাই আর কথা না বাড়িয়ে চলুন জানি কেন মারা গেলে বড়ই পাতা মেশানো পানি দিয়ে গোসল দেয়া হয়। মৃত ব্যক্তিকে গোসল দেয়া ফরজে কেফায়া।

অনেকে গোসল দেয়া ওয়াজিব বলেছেন।

তবে মানুষ মারা গেলে তাকে সঠিক ভাবে গোসল দেয়া উত্তম এর মধ্যে অন্যতম একটি হলো কুল বরই পাতা মেশানো হালকা গরম পানি দিয়ে গোসল দেয়া। কিন্তু মৃত ব্যক্তিকে বড়ই পাতা মেশানো পানিতে গোসল দেয়ার কারণ কি। মানুষ মারা গেলে বড়ই পাতা মেশানো পানি দিয়ে গোসল করানো হয়। কিন্তু কেন বড়ই পাতা মেশানো পানি দিয়ে গোসল করানো হয় এ বিষয়টি হযরত ইবনে আব্বাস (রা.) বর্ণনা করেন এক ব্যক্তি আরাফাতে অবস্থান এর সময় তার উঠনি থেকে পড়ে যায় এতে তার ঘাড় মটকে যায় এতে সে মারা যায়।

মৃত ব্যক্তি গোসলে বড়ইপাতা

তখন রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু ওয়া সাল্লাম বললেন তাকে বড়ই পাতা সহ পানি দিয়ে গোসল করাও এবং দুই কাপড়ে তাকে কাফন দাও তাকে সুগন্ধি লাগাবে না এবং তার মাথা ঢাকবে না কেননা কেয়ামতের দিন সে তালবিয়া পাঠ করতে করতে উঠবে। (বুখারী)

শুধু হজে অংশগ্রহণকারী ব্যক্তির

ব্যাপারে প্রিয়নবী সাল্লাল্লাহু ওয়া সাল্লাম এর ঘোষণা দেননি বরং তিনি তার মেয়ে হযরত যয়নব রাযিয়াল্লাহু আনহার মৃত্যুর পরও তাকে বরই পাতা মেশানো পানি দিয়ে গোসল দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। এ বিষয়ে আরেকটি বর্ণনায় এসেছে হযরত ইসমাইল ইবনে আব্দুল্লাহ রহমতুল্লাহি আলাইহি উন্মে আনসারী রাদিআল্লাহু আনহু থেকে বর্ণনা করেন রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু ওয়া সাল্লাম এর মেয়ে যয়নাব রাদিআল্লাহু তায়ালা আনহার ইন্তেকাল হলে তিনি আমাদের কাছে আসেন এবং বলেন তোমরা তাকে ৩/৫ বা  প্রয়োজন মনে করলে তার চেয়ে বেশি বার বড়ই পাতা সহ পানি গোসল দাও শেষ বার কিছু কর্পূর বা কিছু কর্পূর ব্যবহার করবে তোমরা গোসল শেষ করে আমাকে জানাও আমরা গোসল শেষ করে তাকে জানালাম তখন তিনি তার চাদরখানা আমাদের দিয়ে বললেন এটি তার গায়ে জড়িয়ে দাও ( বুখারী)

মৃত ব্যক্তি গোসলে বড়ইপাতা

এই হাদীসগুলো থেকে বোঝা যায় মৃত ব্যক্তির গোসলের পানিতে বড়ই বা কূল পাতা দেয়া ইসলামী শরীয়ত সম্মত একটা রীতি কেননা বড়ই পাতা পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার জন্য খুব কার্যকরী যদি বড়ই পাতার না পাওয়া যায় তবে সাবান এ জাতীয় কিছু ব্যবহার করাই যথেষ্ট আর বড়ই পাতা মেশানো পানিতে গোসল করানো হলে প্রিয়নবী সাল্লাল্লাহু ওয়াসাল্লামের সুন্নত আদায় হয়। এটা বানোয়াট কোনো কাজ নয় তবে অনেকে আবার এ রীতিকে ওয়াজিব বা আবশ্যক বলে থাকেন। তবে গোসলের পানিতে বড়ই পাতা দেয়া ওয়াজিব নয় বরং আলেমগণ হাদিসের এ নির্দেশনাকে মুস্তাহাব বলেছেন।

এছাড়াও বিজ্ঞানের গবেষণা থেকে

প্রমাণিত যে বড়ই পাতায় বেশকিছু অ্যান্টিসেপটিক উপাদান রয়েছে যা পানিতে কিছুক্ষণ ভিজিয়ে রাখলে বা পানিতে দিয়ে হাল্কা গরম করলে বরই পাতা থেকে এক ধরনের আঠালো নির্যাস পানির সঙ্গে মিশে যায় আর এই নির্যাস গুলো মানুষের শরীরকে জীবাণুমুক্ত করার কার্যকরী এন্টিসেপটিক হিসেবে কাজ করে। সহজেই শরীরে যেমন পোঁকামাকড় আক্রমন করতে পারে না আবার এ দেহে সহজে পচন ধরে না। প্রায় দেড় হাজার বছর আগে এ কারণেই বিশ্বনবী সাল্লাল্লাহু ওয়া সাল্লাম মৃত ব্যক্তিকে বড়ই পাতা মেশানো পানি দিয়ে গোসল করানোর কথা বলেছেন।

মৃত ব্যক্তি গোসলে বড়ইপাতা

সুতরাং মুমিন মুসলমানের উচিত মৃত মানুষকে বড়ই পাতা মেশানো হালকা গরম পানি দিয়ে গোসল দেয়া এতে মৃত্যের লাশ যেমন থাকবে জীবাণুমুক্ত পরিচ্ছন্ন আবার হাদিসের নির্দেশনার ওপর হবে যথাযথ আমল। মহান আল্লাহ তায়ালা মুসলিম উম্মাহকে হাদীসের উপর আমল করার তৌফিক দান করুন। মানুষের মৃত্যুর পর বড়ই পাতা মেশানো হালকা গরম পানি দিয়ে উত্তম পদ্ধতিতে গোসল দেওয়ার তৌফিক দান করুন আমীন। প্রিয় দ্বীনি ভাই ও বোনেরা বড়ই পাতা দিয়ে মৃত ব্যক্তিকে গোসল দেয়ার জন্য এটা কি আগে থেকে আপনি জানতেন। জানলে

আমাদের কমেন্ট বক্সে জানিয়ে দিন আর যদি আজই প্রথম জানলেন সেটাও জানাতে পারেন।

তো বন্ধুরা এই ছিল আজকের আলোচনা আজকে এ পর্যন্তই।
সবাই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন আর আমাদের সাইটের সাথে

থাকবেন প্রতিদিন নতুন নতুন পোস্ট পেতে। আমার আর অন্যান্য পোস্ট:

সেরা ভিআইপি ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ২০২২;

ধন্যবাদ

মৃত ব্যক্তি গোসলে বড়ইপাতা

আপডেট সময় : 12:03:32 pm, Tuesday, 11 October 2022

যে একটি কারণে বড়ই পাতা মেশানো পানিতে মৃত ব্যক্তিকে গোসল দেয়া হয়

মৃত ব্যক্তি গোসলে বড়ইপাতা-একটা সময় আমি আপনি সবাই মারা যাব এমনকি মালাকুল মউত আজরাইলও মৃত্যুবরণ করবে। কিন্তু মুসলিমরা মারা গেলে গোসলের সময় বড়ই পাতা মেশানো পানি দিয়ে গোসল দেয়া হয় কেন এর রহস্য কি সেই বিষয়ে আলোচনা করবো এই আর্টিকেলে ইনশাআল্লাহ। এই রহস্য সম্পর্কে জানতে আর্টিকেলটি সম্পূর্ণ পড়বেন বলে আশা রাখি। তাই আর কথা না বাড়িয়ে চলুন জানি কেন মারা গেলে বড়ই পাতা মেশানো পানি দিয়ে গোসল দেয়া হয়। মৃত ব্যক্তিকে গোসল দেয়া ফরজে কেফায়া।

অনেকে গোসল দেয়া ওয়াজিব বলেছেন।

তবে মানুষ মারা গেলে তাকে সঠিক ভাবে গোসল দেয়া উত্তম এর মধ্যে অন্যতম একটি হলো কুল বরই পাতা মেশানো হালকা গরম পানি দিয়ে গোসল দেয়া। কিন্তু মৃত ব্যক্তিকে বড়ই পাতা মেশানো পানিতে গোসল দেয়ার কারণ কি। মানুষ মারা গেলে বড়ই পাতা মেশানো পানি দিয়ে গোসল করানো হয়। কিন্তু কেন বড়ই পাতা মেশানো পানি দিয়ে গোসল করানো হয় এ বিষয়টি হযরত ইবনে আব্বাস (রা.) বর্ণনা করেন এক ব্যক্তি আরাফাতে অবস্থান এর সময় তার উঠনি থেকে পড়ে যায় এতে তার ঘাড় মটকে যায় এতে সে মারা যায়।

মৃত ব্যক্তি গোসলে বড়ইপাতা

তখন রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু ওয়া সাল্লাম বললেন তাকে বড়ই পাতা সহ পানি দিয়ে গোসল করাও এবং দুই কাপড়ে তাকে কাফন দাও তাকে সুগন্ধি লাগাবে না এবং তার মাথা ঢাকবে না কেননা কেয়ামতের দিন সে তালবিয়া পাঠ করতে করতে উঠবে। (বুখারী)

শুধু হজে অংশগ্রহণকারী ব্যক্তির

ব্যাপারে প্রিয়নবী সাল্লাল্লাহু ওয়া সাল্লাম এর ঘোষণা দেননি বরং তিনি তার মেয়ে হযরত যয়নব রাযিয়াল্লাহু আনহার মৃত্যুর পরও তাকে বরই পাতা মেশানো পানি দিয়ে গোসল দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। এ বিষয়ে আরেকটি বর্ণনায় এসেছে হযরত ইসমাইল ইবনে আব্দুল্লাহ রহমতুল্লাহি আলাইহি উন্মে আনসারী রাদিআল্লাহু আনহু থেকে বর্ণনা করেন রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু ওয়া সাল্লাম এর মেয়ে যয়নাব রাদিআল্লাহু তায়ালা আনহার ইন্তেকাল হলে তিনি আমাদের কাছে আসেন এবং বলেন তোমরা তাকে ৩/৫ বা  প্রয়োজন মনে করলে তার চেয়ে বেশি বার বড়ই পাতা সহ পানি গোসল দাও শেষ বার কিছু কর্পূর বা কিছু কর্পূর ব্যবহার করবে তোমরা গোসল শেষ করে আমাকে জানাও আমরা গোসল শেষ করে তাকে জানালাম তখন তিনি তার চাদরখানা আমাদের দিয়ে বললেন এটি তার গায়ে জড়িয়ে দাও ( বুখারী)

মৃত ব্যক্তি গোসলে বড়ইপাতা

এই হাদীসগুলো থেকে বোঝা যায় মৃত ব্যক্তির গোসলের পানিতে বড়ই বা কূল পাতা দেয়া ইসলামী শরীয়ত সম্মত একটা রীতি কেননা বড়ই পাতা পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার জন্য খুব কার্যকরী যদি বড়ই পাতার না পাওয়া যায় তবে সাবান এ জাতীয় কিছু ব্যবহার করাই যথেষ্ট আর বড়ই পাতা মেশানো পানিতে গোসল করানো হলে প্রিয়নবী সাল্লাল্লাহু ওয়াসাল্লামের সুন্নত আদায় হয়। এটা বানোয়াট কোনো কাজ নয় তবে অনেকে আবার এ রীতিকে ওয়াজিব বা আবশ্যক বলে থাকেন। তবে গোসলের পানিতে বড়ই পাতা দেয়া ওয়াজিব নয় বরং আলেমগণ হাদিসের এ নির্দেশনাকে মুস্তাহাব বলেছেন।

এছাড়াও বিজ্ঞানের গবেষণা থেকে

প্রমাণিত যে বড়ই পাতায় বেশকিছু অ্যান্টিসেপটিক উপাদান রয়েছে যা পানিতে কিছুক্ষণ ভিজিয়ে রাখলে বা পানিতে দিয়ে হাল্কা গরম করলে বরই পাতা থেকে এক ধরনের আঠালো নির্যাস পানির সঙ্গে মিশে যায় আর এই নির্যাস গুলো মানুষের শরীরকে জীবাণুমুক্ত করার কার্যকরী এন্টিসেপটিক হিসেবে কাজ করে। সহজেই শরীরে যেমন পোঁকামাকড় আক্রমন করতে পারে না আবার এ দেহে সহজে পচন ধরে না। প্রায় দেড় হাজার বছর আগে এ কারণেই বিশ্বনবী সাল্লাল্লাহু ওয়া সাল্লাম মৃত ব্যক্তিকে বড়ই পাতা মেশানো পানি দিয়ে গোসল করানোর কথা বলেছেন।

মৃত ব্যক্তি গোসলে বড়ইপাতা

সুতরাং মুমিন মুসলমানের উচিত মৃত মানুষকে বড়ই পাতা মেশানো হালকা গরম পানি দিয়ে গোসল দেয়া এতে মৃত্যের লাশ যেমন থাকবে জীবাণুমুক্ত পরিচ্ছন্ন আবার হাদিসের নির্দেশনার ওপর হবে যথাযথ আমল। মহান আল্লাহ তায়ালা মুসলিম উম্মাহকে হাদীসের উপর আমল করার তৌফিক দান করুন। মানুষের মৃত্যুর পর বড়ই পাতা মেশানো হালকা গরম পানি দিয়ে উত্তম পদ্ধতিতে গোসল দেওয়ার তৌফিক দান করুন আমীন। প্রিয় দ্বীনি ভাই ও বোনেরা বড়ই পাতা দিয়ে মৃত ব্যক্তিকে গোসল দেয়ার জন্য এটা কি আগে থেকে আপনি জানতেন। জানলে

আমাদের কমেন্ট বক্সে জানিয়ে দিন আর যদি আজই প্রথম জানলেন সেটাও জানাতে পারেন।

তো বন্ধুরা এই ছিল আজকের আলোচনা আজকে এ পর্যন্তই।
সবাই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন আর আমাদের সাইটের সাথে

থাকবেন প্রতিদিন নতুন নতুন পোস্ট পেতে। আমার আর অন্যান্য পোস্ট:

সেরা ভিআইপি ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ২০২২;

ধন্যবাদ